তালাক দেওয়ার অপরাধে সাবেক স্ত্রীর নাক ও হাত কেটে নিলেন সাবেক স্বামী



তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ স্ত্রী সোনাভান (৪৬) স্বামীর নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে দুই মাস পূর্বে তালাক দেন। আর তালাক দেওয়ার অপরাধে সাবেক স্বামী ধারালো রাম দাদিয়ে স্ত্রী’র নাক ও হাত কেটে ফেলেছেন।
গুরুত্বর আহত গৃহবধু সোনাভানকে মুমূর্ষ অবস্থায় প্রথমে তাড়াশ ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করাহয়। পরে সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে সন্ধ্যায় বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।
ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্প্রতিবার বিকালে সিরাজগঞ্জের তাড়াশের দেশীগ্রাম ইউনিয়নের কর্ণঘোষ গ্রামের গ্রামীন সড়কের ব্রীজের সন্নিকটে।
গৃহবধু সোনাভান ওই গ্রামের মৃত সোনা বুল্লার মেয়ে ও তিন সন্ত্রানের জননী।
আর এ ঘটনায় বৃহস্প্রতিবার রাতে তাড়াশ থানা পুলিশ প্রায় ৫ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে জেলার রায়গঞ্জ উপজেলার বম্ম্রগাছাএলাকা থেকে ঘাতক স্বামীকে সাগর হোসেন ওরফে আব্দুস সালাম (৫০) কে আটক করেছে।
আটক সাগর হোসেন ওরফে আব্দুস সালাম উপজেলার মাধাইনগর ইউনিয়নের কাঞ্চনেশ্বর গ্রামের মৃত গোলাম মওলাব কসের ছেলে।
বিষয়টি তাড়াশ থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম নিশ্চিত করেছেন।
পুলিশ জানান, প্রায় ২৫ বছর পূর্বে দেশীগ্রাম ইউনিয়নের কুমাল্লু গ্রামের মৃত সোনাবুল্লার মেয়ে সোনাভানের পার্শ্ববর্তী কাঞ্চনেশ্বর গ্রামের মৃত গোলাম মওলাবকস’র ছেলে সাগর হোসেন ওরফে আব্দুস সালামের সাথে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। তাদের সংসারে তিনটি সন্তানও রয়েছে। কিন্তু বিয়ের পর থেকেই স্বামী সাগর হোসেন ওরফে আব্দুস সালাম নানা ভাবে স্ত্রী সোনাভানকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছিল। তারাই ধারাবাহিকতায় মাস দু পূর্বে আব্দুস সালাম স্ত্রীকে নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেন। যে কারনে স্ত্রী সোনাভান অতিষ্ঠ হয়ে স্বামী আব্দুস সালামকে তালাক দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রাস্তা ঘাটে ও বাড়ীতে এসে সোনাভানের সাবেক স্বামী তাকে শায়েস্তা করার হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছে। এ কারনে বৃহস্প্রতিবার দুপুরে সোনাভান এর প্রতিকার চাইতে স্থানীয় দেশীগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদে যান। আর পরিষদ থেকে ফেরার পথে কর্ণঘোষ গ্রামের গ্রামীন সড়কের ব্রীজের সন্নিকটে আসলে তার সাবেক স্বামী সোনাভানের পথরোধ করে তালাক দেওয়ার অপরাধে তাকে হত্যার হুমকিদিতে থাকে। এক পর্যায়ে সাবেক স্বামী ধারালো রাম দা বেরকরে ওই গৃহবধুর নাকে কোপ দেন। এতে নাকের উপরি অংশ কেটে মাটিতে পড়ে যায়। তার পর সাবেক স্বামী তার ডান হাতের কুনইয়ে কোপ দেয়। পরে ওই রাস্তায় চলাচলকারী পথচারীরা গৃহবধুকে উদ্ধার করে মুমূর্ষ অবস্থায় তাড়াশ ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।
এ দিকে খবর পেয়ে তাড়াশ থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক আব্দুস সালাম ৫ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে জেলার রায়গঞ্জ উপজেলার বম্ম্রগাছা এলাকা থেকে ঘাতক স্বামীকে সাগর হোসেন ওরফে আব্দুস সালাম (৫০) কে আটক করে রাত ১০ টার দিকে থানায় নিয়ে আসেন।
এ প্রসঙ্গে তাড়াশ থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Share This Article On:

মন্তব্য করুন
Submit Comment

Privacy Policy মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url